ইউক্রেনজুড়ে মুহুর্মুহু রুশ হামলা, সারাক্ষণ বাজছে সাইরেন ইউক্রেনজুড়ে মুহুর্মুহু রুশ হামলা, সারাক্ষণ বাজছে সাইরেন – দৈনিক পাবনা
  1. admin@dainikpabna.com : admin :
  2. rakibhasnatpabna@gmail.com : Rakib Hasnat : Rakib Hasnat
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
শিমুল বিশ্বাসের মুক্তির দাবিতে পাবনায় বিএনপির বিশাল বিক্ষোভ মিছিল  শিক্ষার্থীদের নিকট সংগ্রামের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরা শিক্ষকদের দায়িত্ব- ডেপুটি স্পীকার জাতিকে এগিয়ে নেয়ার পথে ইতিহাস, ঐতিহ‌্য ও অভিজ্ঞতা বিনিময় জরুরী- ডেপুটি স্পীকার আগামী রোববার পাবনার খাজানগরে মহাপবিত্র ইছালে ছাওয়াব মাহফিল!  কাজিরহাটকে যুক্ত করে পদ্মা-যমুনার মোহনায় ওয়াই আকৃতির সেতু বা টানেলের প্রস্তাব রূপপুরের পণ্যবোঝাই রুশ জাহাজ চীনের পথে পাবনার সেই ঘটনার আসামিরা ঘুরছে প্রকাশ্যে, বাদীরা আতঙ্কে উপজেলা শিক্ষা অফিসার, এ,কে,এম, রেজাউল হক আর নেই ঐতিহ্যবাহী চড়াডাঙ্গা দরবার শরীফে ইছালে ছাওয়াব মাহফিল অনুষ্ঠিত দুর্নীতি ও রাজনৈতিক প্রভাবমুক্তের দাবিতে দুবলিয়া স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন 

ইউক্রেনজুড়ে মুহুর্মুহু রুশ হামলা, সারাক্ষণ বাজছে সাইরেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১০ মাস আগে
  • ৭৪ বার পঠিত

রাজধানী কিয়েভসহ পুরো ইউক্রেনজুড়ে বিভিন্ন শহরে মুহুর্মুহু রকেট ও বিমান হামলা চালাচ্ছে রাশিয়া। পূর্ব ইউরোপের এই দেশটির খারকিভ শহরে অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন ১৩ জন। মাইকোলাইভ শহরে ক্রমাগত রকেট হামলা চলছে।

নিপ্রো থেকে বিবিসির সংবাদদাতা জো ইনউড বলছেন, হামলা সম্পর্কে সতর্ক করতে প্রায় সারাক্ষণই সেখানে বাজছে যুদ্ধের সাইরেন। ইউক্রেনের পশ্চিমের ডনবাস থেকে মারাত্মক জখম হওয়া নাগরিক একটি ট্রেনে করে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার খবর দিচ্ছেন তিনি।

 

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদোমির জেলেনস্কি বলেছেন, ‘হামলা চালিয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে ভীতি সঞ্চারের চেষ্টা চলছে। সাধারণ নাগরিকদের ওপর মর্টার আর রকেট হামলা চলছে।’

ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্র কুলেবা বলেছেন, রাশিয়া মারিউপোলকে একেবারে মাটির সাথে গুড়িয়ে দিতে চায়। শহরের কিছুই যেন আর অবশিষ্ট নেই। রাশিয়া শহরটিতে প্রবেশ বিচ্ছিন্ন করার পরিকল্পনা করছে বলে শহরের কর্মকর্তারা বলছেন।

তবুও এরই মধ্যে মারিউপোলে আত্মসমর্পণের জন্য রুশ আল্টিমেটামে সাড়া দেয়নি ইউক্রেন। যদিও রাশিয়া বলছে, পুরো শহরের নিয়ন্ত্রণ এখন তাদের হাতে। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত রাশিয়ার সেনাদের বিরুদ্ধ লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ডেনিস শামিহাল।

যদি মারিউপোলের পতন ঘটে, এটি হবে গত দুই মাসের যুদ্ধে রাশিয়ার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিজয়। মারিউপোল হচ্ছে আজভ সাগর অঞ্চলের সবচেয়ে বড় বন্দর। এটি লৌহ এবং ইস্পাত শিল্পের বড় কেন্দ্র।

 

ইউক্রেনের বেশিরভাগ ইস্পাত, কয়লা এবং শস্য এই বন্দর দিয়েই রফতানি করা হয়। এটি হারালে ইউক্রেনের অর্থনীতির জন্য সেটি হবে আরেকটি বড় আঘাত। রাশিয়া যদি এই শহর দখল করতে পারে, তাহলে ক্রিমিয়া থেকে রাশিয়া পর্যন্ত তারা একটি সরাসরি স্থল সংযোগ স্থাপন করতে পারবে। এটি হবে রাশিয়ার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ কৌশলগত এবং সামরিক বিজয়।

রাশিয়া দাবি করছে, তারা শহরটির বেশিরভাগ এলাকায় পূর্ণ কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করেছে। তবে মারিউপোলের আজভস্টল ইস্পাত কারখানা এখনো দখল করতে পারেনি রুশ সেনারা। এই কারখানাকে ইউরোপের সবচেয়ে বড় ইস্পাত শিল্প বলে গণ্য করা হয়। মারিউপোলের অবশিষ্ট ইউক্রেনীয় যোদ্ধারা সেখানেই আছে।

তবে বেসামরিক নাগরিকদের ওপর হামলার কথা অস্বীকার করে রাশিয়া বলছে, ইউক্রেনে বিশেষ অভিযান চালানো হচ্ছে দেশটিকে নিরস্ত্রীকরণের উদ্দেশে এবং দেশটির বিপজ্জনক জাতীয়তাবাদীদের বিরুদ্ধে।

এদিকে আরও এক রুশ জেনারেল যুদ্ধে নিহত হয়েছেন। দেশটির অষ্টম আর্মি’র ডেপুটি কমান্ডার মেজর জেনারেল ভ্লাদিমির ফ্রোলভসহ মোট সাতজন জেনারেল নিহত হওয়ার কথা বলছে পশ্চিমা দেশগুলো। যদিও রাশিয়া এই খবর নিশ্চিত করেনি।

অন্যদিকে কিয়েভে নতুন রুশ হামলার পর যুক্তরাষ্ট্রকে লিখিতভাবে সতর্ক করেছে রাশিয়া। দেশটির দাবি, ইউক্রেনকে অস্ত্র দেওয়া বন্ধ না করলে ‘অপ্রত্যাশিত পরিণতি’ ভোগ করতে হবে।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন সম্প্রতি ইউক্রেনের জন্য অতিরিক্ত ৮০ কোটি ডলার মূল্যের সামরিক সাহায্য দেওয়ার একটি প্রস্তাব অনুমোদন করার পর রাশিয়া এই হুঁশিয়ারি দিল।

 

ঢাকা পোস্ট

এ জাতীয় আরও খবর

যুক্তরাজ্যের পুলিশ বাহিনীর কিছু সদস্যের বিরুদ্ধে ভয়াবহ অভিযোগ উঠেছে। লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের এক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ২৪টি ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে তোলপাড় শুরু হয়েছে ব্রিটেনে। এ ঘটনায় পুলিশ বাহিনীর ভেতরে শুদ্ধি অভিযান জোরদার করা হয়েছে। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের। ডেভিড ক্যারিক নামের ওই কর্মকর্তার কাছে ২৪ জন নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এছাড়াও নির্যাতন, মিথ্যা কারণ দেখিয়ে গ্রেফতারসহ ৪৯টি অপরাধের দায় স্বীকার করেছেন তিনি। ক্ষমতা কাজে লাগিয়ে ভয়ভীতিও দেখাতেন ভুক্তভোগীদের। দায়িত্বরত একজন পুলিশ কর্মকর্তার এমন ভয়াবহ অপরাধে নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। লন্ডন পুলিশ কমিশনার মার্ক রোলে বলেন, ডেভিড ক্যারিকের অপরাধ অত্যন্ত গুরুতর। ভুক্তভোগীদের সাথে তিনি ঘৃণ্য অপরাধ করেছেন। যারা সাহস করে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন, তাদের পদক্ষেপ আসলেই প্রশংসনীয়। একজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য হয়েও এমন কাজ ক্ষমার অযোগ্য। গত কয়েক বছর ধরেই ব্রিটিশ পুলিশের বিরুদ্ধে উঠছিল একের পর অপরাধের অভিযোগ। যা নিয়ে তৎপরও ছিল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এর মাঝেই ডেভিড ক্যারিকের স্বীকারোক্তি তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। পুলিশ বাহিনীর মাঝে জোরালো হয়েছে শুদ্ধি অভিযান। লন্ডন পুলিশ তথ্যমতে, বর্তমানে আট শতাধিক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হাজারের বেশি যৌন নিপীড়ন এবং নির্যাতনের অভিযোগ নিয়ে চলছে তদন্ত। বহু পুলিশ সদস্য চাকরি হারাবেন বলেও হুঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে। সুকৌশলে পুলিশে নিযুক্ত সব সদস্যের বিষয়ে অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে। কারো বিরুদ্ধে পারিবারিক নির্যাতন বা যৌন হয়রানির অভিযোগ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হবে, তাদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনার আশ্বাস দেয়া হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। যুক্তরাজ্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুয়েলা ব্রাভারম্যান বলেন, ভুক্তভোগীদের প্রতি আমার সমবেদনা। জনগণকে আশ্বস্ত করতে চাই যে, পুলিশ বাহিনীকে চ্যালেঞ্জ করতে সরকার পিছপা হবে না। দুর্নীতিবাজ পুলিশ কর্মকর্তাদের খুঁজে বের করতে জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। পরিবর্তন অবশ্যই আসবে। দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে আমার ক্ষমতা বলে যতখানি করা সম্ভব তা আমি করবো। পুলিশ বাহিনীকে পুনরায় জনগণের আস্থা অর্জনে পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছে সুনাক প্রশাসন। একইসাথে নারীদের ঘরে ও বাইরে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেও দেয়া হয়েছে নির্দেশনা।

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ দৈনিক পাবনা
Themes Customized By Shakil IT Park