জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা মুক্তিযোদ্ধাদের জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা মুক্তিযোদ্ধাদের – দৈনিক পাবনা
  1. admin@dainikpabna.com : admin :
  2. rakibhasnatpabna@gmail.com : Rakib Hasnat : Rakib Hasnat
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পাবনায় ডিজিটাল হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় প্রকৌশলীর মৃত্যু রাজশাহীর গণসমাবেশে তুহিন-মামুনুরের নেতৃত্বে কৃষক দলের বিশাল জমায়েত! সুবিধাবঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগিতার আশ্বাস ডেপুটি স্পিকারের পাবনায় বালুমহাল নিয়ে আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫ বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন পাবনা’র বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন পাবনা’র বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ বিজয়ের গান নিয়ে পাবনার পথে পথে পাবনা গণশিল্পী ভ্যানচালক স্বামীর অনুপ্রেরণায় ছেলের সঙ্গে এসএসসি পাস করলেন স্ত্রী অপরাজনীতিকে আবারও রুখে দেবে বাঙালি : ডেপুটি স্পিকার সহকারী অধ্যাপককে পেটানোর অভিযোগ কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে

জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা মুক্তিযোদ্ধাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ৩ সপ্তাহ আগে
  • ৩২ বার পঠিত

পাবনার বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট সাইফুল আলম বাবলুকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিতের অভিযোগ তুলে তার প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মুক্তিযোদ্ধারা। এসময় তারা জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত আগামী ১৬ ডিসেম্বরের অনুষ্ঠানসহ জাতীয় দিবসের সকল অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন।

শনিবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে পাবনা প্রেস ক্লাবের ভিআইপি মিলনায়তনে ‘ভারতে সামরিক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ৭১-এর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ পাবনা জেলা ইউনিটের’ ব্যানারে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

লিখিত বক্তব্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশার বলেন, গত ১ নভেম্বর দুপুরে পাবনা জেলা প্রশাসকের দপ্তর থেকে দাপ্তরিক কাজ শেষে ফেরার সময় বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইফুল আলম বাবলুকে অফিস চত্বরের নিচে কয়েকজন গেজেট ও লাল মুক্তিবার্তা বাতিলকৃত স্ব-ব্যাখ্যায়িত দাবিদার মুক্তিযোদ্ধারা অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে এবং কয়েকজন বাবলুকে কিল-ঘুষি দেন। একপর্যায়ে বাবলুকে মুক্তিযোদ্ধা মেজর (অব.) ডা. মনসুর শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন।

তিনি আরও বলেন, পরবর্তীতে সমস্যার সমাধানে পাবনা জেলা প্রশাসক বিশ্বাস রাসেল হোসেন বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) একটি বৈঠকের আয়োজন করেন। সেই বৈঠকে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষ থেকে বাবলুকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়। এসময় মুক্তিযোদ্ধা বাবলু আত্মপক্ষ সমর্থন করে বক্তব্য দেন। বিষয়টি জেলা প্রশাসক শোনার পরও কোনো আশ্বাস দেননি। এছাড়াও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পাবনা জেলা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হাবিব সুজানগরের যুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন সন্টু অংশগ্রহণ করেননি বলে মন্তব্য করেন এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে তুফানি ব্যাটালিয়ন বলে কোনো বাহিনী ছিল না বলেও দাবি করেন। এমতাবস্থায় মুক্তিযোদ্ধারা ডিসি অফিসের বৈঠক বর্জন করে বের হয়ে আসেন এবং ডিসি অফিস চত্বরে বিক্ষোভ ও সাংবাদিকদের সৃষ্ট পরিস্থিতি নিয়ে মতবিনিময় করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট সাইফুল আলম বাবলু, আবুল বাশার, বদিউজ্জামান, আবু জাফর, আতিয়ার রহমান সাচ্চু, এস এম মাহাবুবুর রশীদ, হামিদুর রহমান প্রমুখ।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে পাবনা জেলা মুক্তিযোদ্ধা হয়রানি প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর (অব.) মীর্জা মনসুর বলেন, লাঞ্ছিতের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইফুল আলম বাবলু ও তার সহযোগীরা মুক্তিযোদ্ধা সংসদে একচ্ছত্র নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা ও চাঁদাবাজিতে বাধা দেওয়ায় পাবনার মুক্তিযোদ্ধাদের বিভিন্নভাবে হয়রানি ও লাঞ্ছিত করে আসছেন। এর বিরুদ্ধে পাবনার বীর মুক্তিযোদ্ধারা মাঠে নেমেছেন এবং সাত দফা দাবিতে আন্দোলন করছেন। সেই আন্দোলন বানচাল করার জন্য বাবলু ও তার সহযোগীরা আজকে এই সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

তিনি আরও বলেন, সাইফুল আলম বাবলু ১৯৭১ সালের নভেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসেন। তিনি কোথাও যুদ্ধ করেছে এমন প্রমাণ দিতে পারবেন না। মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে সাইফুল আলম বাবলু কর্তৃক যেসব বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গেজেট সনদ বাতিল করা হয়েছে, তারা ইতোমধ্যেই হাইকোর্টে রিট পিটিশন দাখিল করেছেন। আদালত ইতোমধ্যে শুনানি শেষে গেজেট সনদ বাতিলের আদেশকে কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- মর্মে রুল জারি করেছেন। এমতাবস্থায় বাবলু ও তার সহযোগীরা মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ তুলে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের নানাভাবে হয়রানির চেষ্টা করছেন।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ দৈনিক পাবনা
Themes Customized By Shakil IT Park