মেয়ে নিয়ে প্রবেশ করতে না দেয়ায় পাবিপ্রবি ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে দোকান ভাঙচুরের অভিযোগ মেয়ে নিয়ে প্রবেশ করতে না দেয়ায় পাবিপ্রবি ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে দোকান ভাঙচুরের অভিযোগ – দৈনিক পাবনা
  1. admin@dainikpabna.com : admin :
  2. rakibhasnatpabna@gmail.com : Rakib Hasnat : Rakib Hasnat
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
৮ বছর আগে মারা গেছেন, প্রধান আসামি করে ভূমি কর্মকর্তার মামলা! চরতারাপুরে শিক্ষককে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা মামলার আসামী আমিরুল গ্রেপ্তার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নে দৃষ্টিনন্দন ‘গোলঘর’ শুভ উদ্বোধন  পাবনায় দপ্তরীর হাতে প্রাথমিক শিক্ষক লাঞ্চিত পাবনা বিআরটিএ অফিসে দালালদের আখড়া, টাকা ছাড়া ফাইল জমা হয়না! শরীফার গল্প’ নিয়ে যে সিদ্ধান্ত হলো সেন্টমার্টিনে বেড়াতে গিয়ে বিসিএস ক্যাডার হ্যাপী নিখোঁজ সুজানগরে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহিনুজ্জামান শাহীনের উঠান বৈঠক পাবনায় ব্র্যাক স্কুলে মেয়েদের ক্রিকেট-ফুটবল প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ পাবনায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালন

মেয়ে নিয়ে প্রবেশ করতে না দেয়ায় পাবিপ্রবি ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে দোকান ভাঙচুরের অভিযোগ

দৈনিক পাবনা ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ৯ মাস আগে
  • ১৭৫ বার পঠিত

রাতে দোকানের টঙ্গে মেয়ে নিয়ে প্রবেশ করতে না দেয়ায় পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের চায়ের দোকান ভাঙচুর ও  হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।
ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চেয়ে বুধবার (৭ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের পশ্চিম পাশে অবস্থিত ফাতেমা স্টোরের মালিক বাচ্চু মিয়া। এর আগে গত সোমবার (৫ জুন) রাত ১০টার দিকে এঘটনা ঘটে।
অভিযোগসূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টার দিকে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রেইন একটি মেয়েকে সাথে নিয়ে আমার দোকানের পাশে থাকা ভাসমান টঙ্গে প্রবেশ করতে চায়। এ সময় টঙে বসে থাকা কয়েকজন স্থানীয় কাস্টমার  রাত হয়ে গেছে বলে মেয়ে নিয়ে টঙে না আসার জন্য অনুরোধ করেন। এ কথাতে মেহেদী হাসান রেইন রাগান্বিত হয়ে কাস্টমারদের সাথে খারাপ ব্যবহার করেন এবং দোকান এখানে কীভাবে থাকে সেটা দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। এর কিছুক্ষণ পরই সে হল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ১৫-২০ জন কর্মী নিয়ে এসে দোকানের টঙ্গ ভাঙচুর করেন। একই সময়ে সে দোকানের ক্যারাম বোর্ডের গুটিগুলো নিয়ে যায়। যাওয়ার সময় সে এবং তার সাথে থাকা ছাত্রলীগ কর্মীরা আমাদের সাথে খারাপ ব্যবহার করে এবং এখানে দোকান কীভাবে চালাই সেটা দেখে নেওয়ার হুমকি দেন।
এঘটনার পর থেকেই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন জানিয়ে সুষ্ঠু বিচার এবং এর ক্ষতিপূরণ দাবি তিনি আরও অভিযোগ করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের কর্মীরা এর আগেও বিভিন্ন কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে থাকা দোকানীদের মারধর এবং দুর্ব্যবহার করেছেন।
এবিষয়ে যোগাযোগ করেও অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার বক্তব্য পাওয়া সম্ভব হয়নি। তবে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি ফরিদুল ইসলাম বাবু বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আমরা বিষয়টি নিয়ে ওই দোকানদারের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করছি। তাদের নিয়ে বসে আলোচনা করে সমাধান করার চেষ্টা করছি।
অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কামাল হোসেন বলেন, বিকেলে আমি একটা অভিযোগ পেয়েছি। তারপর আমি অভিযুক্ত ও অভিযোগকারী দুইজনকেই আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) আমার অফিসে ডেকেছি। তাদের সঙ্গে কথা বলে সত্য-মিথ্যা যাচাই করে ব্যবস্থা নিতে পারবো।’

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ দৈনিক পাবনা
Themes Customized By Shakil IT Park