ভালোবাসার টানে মিশরের নুরহান বাংলাদেশে ভালোবাসার টানে মিশরের নুরহান বাংলাদেশে – দৈনিক পাবনা
  1. admin@dainikpabna.com : admin :
  2. rakibhasnatpabna@gmail.com : Rakib Hasnat : Rakib Hasnat
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ভাষা সৈনিক একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক রণেশ মৈত্র আর নেই ঈশ্বরদী কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের সভাপতি লুৎফর, সম্পাদক মহিদুল  পাবনায় আনছার বিশ্বাস স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন পাবনা’র উদ্যোগে বৃত্তি প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত ডেপুটি স্পিকারের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আ.লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ পাবনায় ডেপুটি স্পিকারের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আ.লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ১০ পাবনায় ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে ১০ লাখ টাকা ছিনতাই শরৎ, তােমার অরুণ আলাের অঞ্জলি, ছড়িয়ে গেল ছাপিয়ে মােহন অঙ্গুলি সুজানগরে আ.লীগ নেতা বাচ্চুর বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ পাবনায় মহাসড়কের পাশে নবজাতকের কার্টনবন্দি মরদেহ!

ভালোবাসার টানে মিশরের নুরহান বাংলাদেশে

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট সময় : ২ মাস আগে
  • ২৩ বার পঠিত

শমসের আলীর বাড়িতে এসে ঘর-সংসার করছেন মিশরের নুরহান (২০)।

শমসের আলী বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের অর্জনুহার গ্রামের কৃষক বাদশা মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, জীবিকার সন্ধানে ২০০৮ সালে মিশরে পাড়ি জমান শমসের আলী। মিশরের কায়রোতে গড়ে তুলেন তার নিজস্ব গার্মেন্টস ব্যবসার প্রতিষ্ঠান। ২০১৮ সালে পরিচয় হয় মিশরের তরুণী নুরহানের সঙ্গে। প্রথমে বন্ধুত্ব, পরে প্রেম। প্রেম থেকে দুই মাসের মাথায় পরিবারের সম্মতিতে তাদের বিয়ে। বর্তমান তাদের সংসারে ৩ বছরের মেয়ে (রুকাইয়া) ও ১১ মাসের (ইয়াসিন) একটি ছেলে রয়েছে।

দীর্ঘ ১৫ বছর পর গত ১০ জুলাই শমসের আলী ফিরে আসেন বাংলাদেশে। সঙ্গে নিয়ে আসেন স্ত্রী নুরহান ও তাদের দুই ছেলে-মেয়েকে।

দেশ ভাষা সংস্কৃতি ভিন্ন এবং আলাদা আবহাওয়া- সব কিছুতে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিয়েছেন মিশর থেকে আসা এই গৃহবধূ। তাদের আসার খবরে এক নজর দেখার জন্য ভিড় করছে আশপাশে গ্রামের লোকজন।

কয়েকজন গ্রামবাসী জানালেন, শমসের ভাই বিদেশি বউ নিয়ে এসেছেন। আমরা তাকে দেখার জন্য আসছি। বউটি দেখতে অনেক সুন্দর। ব্যবহার, আচার-আচরণও খুবই ভালো। তবে আমাদের ভাষা সে বোঝে না এবং আমরাও তার ভাষা বুঝিনা।

শমসের আলী বলেন, ১৫ বছর পর স্ত্রী সন্তান নিয়ে দেশে আসছি। ৪ বছর আগে নুরহানকে বিয়ে করেছি। সংসার জীবনে অনেক ভালো আছি। সে আমার পরিবারের সাথে মিশে গেছে। তার নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার ইচ্ছে নেই। তবে যেতে হবে কেননা সেখানে আমরা নিজস্ব ব্যবসা আছে।

নুরহান বলেন, বাংলাদেশকে অনেক ভাল লেগেছে। এখানকার মাটি মানুষ, গাছ-পালা, সবুজ মাঠ আর খোলা আকাশ খুবই সুন্দর। আমি এখানে রয়েই যাবো

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ দৈনিক পাবনা
Themes Customized By Shakil IT Park