পাবনা হোমিওপ্যাথিক কলেজের নিয়োগে অনিয়ম, অধ্যক্ষের ছেলেই প্রার্থী পাবনা হোমিওপ্যাথিক কলেজের নিয়োগে অনিয়ম, অধ্যক্ষের ছেলেই প্রার্থী – দৈনিক পাবনা
  1. admin@dainikpabna.com : admin :
  2. rakibhasnatpabna@gmail.com : Rakib Hasnat : Rakib Hasnat
মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:২৩ পূর্বাহ্ন
মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:২৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কুমারখালীতে ৪০ কেজি ওজনের গাঁজার গাছসহ আটক ১ পাবনায় শিক্ষকদের বরণ ও প্রাথমিক শিক্ষা পদক অনুষ্ঠান দিনে শুনসান নিরবতা, আঁধার নামলেই শুরু হয় সুজানগরে বালু উত্তোলনের মহোৎসব  পাবনায় বই মেলার উদ্বোধন করলেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পীকার পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশাররফ মারা গেছেন ভাষার জন্য প্রাণ দেওয়া বিশ্বে অনন্য উদাহরণ : সেনাপ্রধান  পাাবনায় ইন্টার্ন নার্সকে মারধরের প্রতিবাদে তৃতীয়দিনে কর্মবিরতি রূপপুর নিয়ে প্রশ্ন করায় ক্ষেপে গেলেন মন্ত্রী ইয়াফেস, জড়ালেন তর্কে পাবনা জেনারেল হাসপাতালের নার্সকে মারধরের অভিযোগ দালালের বিরুদ্ধে ‘আমার সঙ্গে আল্লাহ ছাড়া কেউ নেই, এজন্য বিচারও চাইনি!’

পাবনা হোমিওপ্যাথিক কলেজের নিয়োগে অনিয়ম, অধ্যক্ষের ছেলেই প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ৩ সপ্তাহ আগে
  • ৩৬ বার পঠিত

পাবনা হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে অনৈতিক লেনদেন ও স্বেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে জনবল নিয়োগ দেয়ার পাঁয়তারার অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া নিজের ছেলের নিয়োগ পরীক্ষা ও প্রক্রিয়া সহজ করতে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডা. মো. আব্দুস সামাদের বিরুদ্ধে অন্য প্রার্থীকে বাদ দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় ৬টি পদের জন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। এতে প্রভাষক পদে ৩টি এবং মেডিকেল অফিসার, হিসাবরক্ষক, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর, নৈশ্য প্রহরী ও সুইপার পদে একজনের পদ উল্লেখ করা হয়। আগামী শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) লিখিত পরীক্ষার জন্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

আবেদনে প্রায় ৪০ জনের অধিক প্রার্থী আবেদন করেন। তবে বাছাই প্রক্রিয়ায় অধিকাংশ প্রার্থীকেই বাদ দেয়া হয়েছে। এতে প্রভাষক পদে ৩ জনের বিপরীতে ৮ জনকে পরীক্ষার জন্যে নির্ধারণ করা হয়, এই পদে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের ছেলেও রয়েছে। মেডিকেল অফিসার পদে একজনকেও রাখা হয়নি। হিসাব রক্ষক পদে ৬ জন ও অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর পদে ৩ জনকে পরীক্ষার জন্য বাছাই করা হয়েছে। এছাড়া নৈশ্য প্রহরী ও সুইপার পদের বিপরীতে শুধুমাত্র একজন করেই পরীক্ষা দিবেন।

বেশ কয়েকজন আবেদনকারী অভিযোগ করে বলেন, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডা. মো. আবদুস সালাম নিজের ছেলেসহ অনৈতিকভাবে পছন্দের লোককে নিয়োগ দেয়ার পাঁয়তারা করছেন। এজন্য যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও অধিকাংশ প্রার্থীকে বাদ দেয়া হয়েছে। আবার কয়েকটি পদে মাত্র একজনকেই পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ দিয়েছেন। ৮টি পদের বিপরীতে মাত্র ১৯ জনকে রাখা হয়েছে। দেখা যাবে এই ১৯ জনের বেশ কয়েকজন পরীক্ষাই দিবে না। ফলে পছন্দের লোকদের নিয়োগ দিতে সুবিধা হবে।

তবে অনৈতিকভাবে নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন পাবনা হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডা. মো. আব্দুস সামাদ। তিনি বলেন, সকল নিয়োগ প্রক্রিয়া অনুসরণ করেই নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। আর পরীক্ষা হবে ডিসি অফিসে। আমার ছেলে পরীক্ষা দিলেও আমি নিয়োগ বোর্ডের থাকবো না, ফলে এই ব্যাপারে আমার কিছু করণীয়ও থাকবে না।

এব্যাপারে পাবনা জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বিশ্বাস রাসেল হোসেন বলেন, আমি এই ব্যাপারে কিছু জানি না। আমি এখন এবিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ দৈনিক পাবনা
Themes Customized By Shakil IT Park