দুবলিয়া বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের হাতে সিনিয়র শিক্ষক লাঞ্ছিত  দুবলিয়া বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের হাতে সিনিয়র শিক্ষক লাঞ্ছিত  – দৈনিক পাবনা
  1. admin@dainikpabna.com : admin :
  2. rakibhasnatpabna@gmail.com : Rakib Hasnat : Rakib Hasnat
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পাবনায় ডিজিটাল হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় প্রকৌশলীর মৃত্যু রাজশাহীর গণসমাবেশে তুহিন-মামুনুরের নেতৃত্বে কৃষক দলের বিশাল জমায়েত! সুবিধাবঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগিতার আশ্বাস ডেপুটি স্পিকারের পাবনায় বালুমহাল নিয়ে আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫ বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন পাবনা’র বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন পাবনা’র বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ বিজয়ের গান নিয়ে পাবনার পথে পথে পাবনা গণশিল্পী ভ্যানচালক স্বামীর অনুপ্রেরণায় ছেলের সঙ্গে এসএসসি পাস করলেন স্ত্রী অপরাজনীতিকে আবারও রুখে দেবে বাঙালি : ডেপুটি স্পিকার সহকারী অধ্যাপককে পেটানোর অভিযোগ কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে

দুবলিয়া বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের হাতে সিনিয়র শিক্ষক লাঞ্ছিত 

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১ মাস আগে
  • ৫৯ বার পঠিত

কালেকশনের টাকা নিয়ে পাবনা সদর উপজেলায় আব্দুল হক (৫৩) নামের এক সিনিয়র শিক্ষককে লাঞ্ছিত ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে দুবলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে।
ভুক্তভোগী শিক্ষক এই বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) পাবনা জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস ও আতাইকুলা থানা পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগপত্রে ভুক্তভোগী শিক্ষকের পক্ষে স্বাক্ষর দিয়েছেন বিদ্যালয়ের ১২ জন শিক্ষক।
লিখিত অভিযোগে আব্দুল হক জানান, গত ২০ অক্টোবর বিকেল পৌনে ৪টার দিকে স্কুল প্রাঙ্গণে প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন তাকে অকথ্য ভাসায় গালি-গালাজ করতে থাকে। এসময় তিনি নিষেধ করলে আনোয়ার হোসেন তার শার্টের কলার ধরে ধাক্কা মেরে অফিস রুমের ফ্লোরে ফেলে দিয়ে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে। এছাড়াও তাকে স্কুলের আসার পথে বড় ধরনের ক্ষতি করারও হুমকি দেয়া হয়।
এবিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষক বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের বেতন ও ফ্রিসহ বিভিন্নভাবে কালেকশন করা টাকা শিক্ষকদের মাঝে বিতরণের জন্য ‘অর্থ কমিটি’ হয় আব্দুল হকের নেতৃত্বে। সেই কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী স্কুলের কালেকশনের টাকা আব্দুল হক স্যার অন্যান্য শিক্ষকদের মাঝে বিতরণ করেন। কিন্তু প্রধান শিক্ষক এর বিরোধিতা করেন। পরে প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন সিনিয়র শিক্ষক আব্দুল হককে তার রুমে ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এক পর্যায়ে তার কাছে থাকা টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেন এবং লাঞ্ছিত করেন। পরে অন্যান্য শিক্ষকরা এগিয়ে আসলে তাদের সঙ্গে প্রধান শিক্ষকের হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।’
তারা আরও বলেন, ‘এই ঘটনার দুইদিন পরে সব শিক্ষককে ডেকে নিয়ে স্কুলের রুমে আটকে রাখার হুমকি দেয়া হয়। বিষয়টি যাতে প্রশাসন ও গণমাধ্যমের কেউ না জানে এই মর্মে মুচলেখা নেয়া হয়। এছাড়াও বিষয়টি নিয়ে বিদ্যালয়ের সভাপতির দ্বারস্থ হোন শিক্ষকরা। তার সঙ্গে দেখা করে ফেরার পরও আরেক শিক্ষক রফিকুল ইসলামের কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা কেরে নেন প্রধান শিক্ষক। ’
এবিষয়ে পাবনা সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার হাফিজুর রহমান বলেন, ‘শিক্ষকদের মধ্যে হাতাহাতি-লাঞ্ছিত করার কোনও অভিযোগ পাইনি। তবে কয়েকদিন আগের প্রধান শিক্ষক আমাকে জানিয়েছিলেন যে- ওই স্কুলের শিক্ষকরা স্কুলের কালেকশনের টাকা ব্যাংকে জমা না দিয়ে তারা নিজেরা ভাগাভাগি করে নিচ্ছেন। এর বাহিরে আমি কিছু জানি না।’
এবিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, ‘বিষয়টি সম্পর্ক ডিসি স্যার, জেলা শিক্ষা অফিস, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতিসহ সবাই জানে। আমি এই বিষয়ে কিছু বলতে চাচ্ছি না। ওরা যা ইচ্ছে করুক। আমি কিছু বলবো না।’
এবিষয়ে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও পাবনা সদর উপজেলার চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন বলেন, প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষকদের মাঝে একটা ঝামেলা হয়েছিল এটা সত্য। এ বিষয়ে কিছু শিক্ষক আমার কাছে আসছিলেন। আমি প্রতিষ্ঠানটি রক্ষার স্বার্থে ঝামেলাটি সমাধান করারও আশ্বাস দিয়েছিলাম তাদেরকে। কিন্তু আমার কাছ যাওয়ার পর বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ দিয়েছেন। তারপরও আমি উভয় পক্ষকে নিয়ে বিষয়টি সমাধান করার চেষ্টা করব।
বিষয়টি তদন্তের দায়িত্বে থাকা দুবলিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আবুল কালাম আজাদ বলেন, বিষয়টি আমি সরেজমিনে তদন্ত করেছি। ঘটনাটা পুরোপুরি সত্য নয়। তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়েছে। কিন্তু মারধর বা টাকা ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনার সততা পাওয়া যায়নি।
এবিষয়ে পাবনা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রুস্তম আলী হেলালী বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত অভিযোগ পাইনি। যদি আজ/কালের মধ্যে দিয়ে থাকেন তাহলে হয়তো রবিবার নাগাদ হাতে পেতে পারি। অভিযোগ হাতে পেলে অভিযোগের ধরনের বুঝে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ দৈনিক পাবনা
Themes Customized By Shakil IT Park