করোনা: দৈনিক সংক্রমণ-মৃত্যুতে ফের শীর্ষে দক্ষিণ কোরিয়া করোনা: দৈনিক সংক্রমণ-মৃত্যুতে ফের শীর্ষে দক্ষিণ কোরিয়া – দৈনিক পাবনা
  1. admin@dainikpabna.com : admin :
  2. rakibhasnatpabna@gmail.com : Rakib Hasnat : Rakib Hasnat
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
শিমুল বিশ্বাসের মুক্তির দাবিতে পাবনায় বিএনপির বিশাল বিক্ষোভ মিছিল  শিক্ষার্থীদের নিকট সংগ্রামের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরা শিক্ষকদের দায়িত্ব- ডেপুটি স্পীকার জাতিকে এগিয়ে নেয়ার পথে ইতিহাস, ঐতিহ‌্য ও অভিজ্ঞতা বিনিময় জরুরী- ডেপুটি স্পীকার আগামী রোববার পাবনার খাজানগরে মহাপবিত্র ইছালে ছাওয়াব মাহফিল!  কাজিরহাটকে যুক্ত করে পদ্মা-যমুনার মোহনায় ওয়াই আকৃতির সেতু বা টানেলের প্রস্তাব রূপপুরের পণ্যবোঝাই রুশ জাহাজ চীনের পথে পাবনার সেই ঘটনার আসামিরা ঘুরছে প্রকাশ্যে, বাদীরা আতঙ্কে উপজেলা শিক্ষা অফিসার, এ,কে,এম, রেজাউল হক আর নেই ঐতিহ্যবাহী চড়াডাঙ্গা দরবার শরীফে ইছালে ছাওয়াব মাহফিল অনুষ্ঠিত দুর্নীতি ও রাজনৈতিক প্রভাবমুক্তের দাবিতে দুবলিয়া স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন 

করোনা: দৈনিক সংক্রমণ-মৃত্যুতে ফের শীর্ষে দক্ষিণ কোরিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১০ মাস আগে
  • ৮২ বার পঠিত

মাত্র সাত দিনের ব্যবধানে করোনা দৈনিক-সংক্রমণ মৃত্যুতে ফের শীর্ষে উঠল দক্ষিণ কোরিয়া। ১০ এপ্রিল রোববার করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুতে বিশ্বে শীর্ষে ছিল দেশটি। এর আগে গত ৩ এপ্রিলও এক দিনে কোভিডে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছিল দেশটিতে।

মহামারি শুরুর পর থেকে করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হালনাগাদ সংখ্যা প্রকাশকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার্সের চার্ট বলছে, রোববার দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১ লাখ ৬৪ হাজার ৪২১ জন এবং এই রোগে মৃত্যু হয়েছে ৩২৯ জনের। বিশ্বের অন্য কোনো দেশে এইদিন এত সংখ্যক আক্রান্ত-মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি।

দক্ষিণ কোরিয়া ব্যতীত বিশ্বের অন্যান্য যেসব দেশে রোববার সংক্রমণ-মৃত্যুর উচ্চহার দেখা গেছে, সেসব দেশ হলো— ফ্রান্স (নতুন আক্রান্ত ১ লাখ ৭ হাজার ৬৫৪ জন, মৃত ৪৫ জন), ইতালি (নতুন আক্রান্ত ৫৩ হাজার ২৫৩ জন, মৃত ৯০ জন), জাপান (নতুন আক্রান্ত ৫২ হাজার ১৬২ জন, মৃত ৫৬ জন), অস্ট্রেলিয়া (নতুন আক্রান্ত ৪৪ হাজার ১১৪ জন, মৃত ১৪ জন) রাশিয়া (মৃত ২৫৯ জন, নতুন আক্রান্ত ১৩ হাজার ৫৬ জন) ও মেক্সিকো (মৃত ১২৫ জন, নতুন আক্রান্ত ২ হাজার ৭১২ জন)।

রোববার বিশ্বজুড়ে  করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ লাখ ৩১ হাজার ৯৪৬ জন এবং কোভিডজনিত অসুস্থতায় ভুগে মারা গেছেন ১ হাজার ৬৭৪ জন। এছাড়া এই দিন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৬ লাখ ৪৪ হাজার ৬৮০ জন।

বিশ্বে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৪ কোটি ৪৪ লাখ ৭৫ হাজার ৮৭৯ জন। এই রোগীদের মধ্যে করোনার মৃদু উপসর্গ বহন করছেন ৫ কেটি ৪৪ লাখ ২২ হাজার ২০১ জন এবং গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আছেন ৫৩ হাজার ৬৭৮ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটিও ঘটেছিল চীনে।

তারপর অত্যন্ত দ্রুতগতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসটি। পরিস্থিতি সামাল দিতে ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

কিন্তু তাতেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় অবশেষে ওই বছরের ১১ মার্চ করোনাকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

ওয়ার্ল্ডেমিটার্সের তথ্য অনুযায়ী, মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৪৯ কোটি ৯১ লাখ ৩২ হাজার ৫৩২ জন এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছে মোট ৬২ লাখ ৩ হাজার ৩২২ জনের। এছাড়া করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ৪৪ কোটি ৮৪ লাখ ৫৩ হাজার ৩৩১ জন।

এসএমডব্লিউ

 

এ জাতীয় আরও খবর

যুক্তরাজ্যের পুলিশ বাহিনীর কিছু সদস্যের বিরুদ্ধে ভয়াবহ অভিযোগ উঠেছে। লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের এক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ২৪টি ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে তোলপাড় শুরু হয়েছে ব্রিটেনে। এ ঘটনায় পুলিশ বাহিনীর ভেতরে শুদ্ধি অভিযান জোরদার করা হয়েছে। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের। ডেভিড ক্যারিক নামের ওই কর্মকর্তার কাছে ২৪ জন নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এছাড়াও নির্যাতন, মিথ্যা কারণ দেখিয়ে গ্রেফতারসহ ৪৯টি অপরাধের দায় স্বীকার করেছেন তিনি। ক্ষমতা কাজে লাগিয়ে ভয়ভীতিও দেখাতেন ভুক্তভোগীদের। দায়িত্বরত একজন পুলিশ কর্মকর্তার এমন ভয়াবহ অপরাধে নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। লন্ডন পুলিশ কমিশনার মার্ক রোলে বলেন, ডেভিড ক্যারিকের অপরাধ অত্যন্ত গুরুতর। ভুক্তভোগীদের সাথে তিনি ঘৃণ্য অপরাধ করেছেন। যারা সাহস করে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন, তাদের পদক্ষেপ আসলেই প্রশংসনীয়। একজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য হয়েও এমন কাজ ক্ষমার অযোগ্য। গত কয়েক বছর ধরেই ব্রিটিশ পুলিশের বিরুদ্ধে উঠছিল একের পর অপরাধের অভিযোগ। যা নিয়ে তৎপরও ছিল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এর মাঝেই ডেভিড ক্যারিকের স্বীকারোক্তি তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। পুলিশ বাহিনীর মাঝে জোরালো হয়েছে শুদ্ধি অভিযান। লন্ডন পুলিশ তথ্যমতে, বর্তমানে আট শতাধিক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হাজারের বেশি যৌন নিপীড়ন এবং নির্যাতনের অভিযোগ নিয়ে চলছে তদন্ত। বহু পুলিশ সদস্য চাকরি হারাবেন বলেও হুঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে। সুকৌশলে পুলিশে নিযুক্ত সব সদস্যের বিষয়ে অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে। কারো বিরুদ্ধে পারিবারিক নির্যাতন বা যৌন হয়রানির অভিযোগ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হবে, তাদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনার আশ্বাস দেয়া হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। যুক্তরাজ্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুয়েলা ব্রাভারম্যান বলেন, ভুক্তভোগীদের প্রতি আমার সমবেদনা। জনগণকে আশ্বস্ত করতে চাই যে, পুলিশ বাহিনীকে চ্যালেঞ্জ করতে সরকার পিছপা হবে না। দুর্নীতিবাজ পুলিশ কর্মকর্তাদের খুঁজে বের করতে জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। পরিবর্তন অবশ্যই আসবে। দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে আমার ক্ষমতা বলে যতখানি করা সম্ভব তা আমি করবো। পুলিশ বাহিনীকে পুনরায় জনগণের আস্থা অর্জনে পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছে সুনাক প্রশাসন। একইসাথে নারীদের ঘরে ও বাইরে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেও দেয়া হয়েছে নির্দেশনা।

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ দৈনিক পাবনা
Themes Customized By Shakil IT Park